অন্যান্য

প্রশ্ন: আমাদের দেশে দেখা যায়, বিভিন্ন দোকান বা ব্যাবসায়িক প্রতিষ্ঠানের নাম ‘বিসমিল্লাহ’ শব্দের দ্বারা রাখা হয়। এটা কি ঠিক?

আপনার জিজ্ঞাসা  ইসলামিক জিজ্ঞাসা ও জবাব ইসলামিক প্রশ্নোত্তর

উত্তর: দোকান, মার্কেট, হোটেল, গাড়ি, লঞ্চ ইত্যাদির নামকরণের ক্ষেত্রে বিসমিল্লাহ, আল হামদুলিল্লাহ, সুবহানাল্লাহ ইত্যাদি বাক্যের ব্যবহার বৈধ নয়।

যেমন মেসার্স বিসমিল্লাহ ট্রেডার্স, বিসমিল্লাহ পরিবহন, হোটেল আল হামদুলিল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ রেস্টুরেন্ট ইত্যাদি।

এভাবে নাম করণ করা শরিয়ত সম্মত নয়। কারণ এতে করে আল্লাহ তাআলা যে মহান উদ্দেশ্যে আমাদেরকে এ সকল মর্যাদাপূর্ণ যিকির ও তাসবীহের বাক্য সমূহ শিক্ষা দিয়েছেন সেখান থেকে দূরে সরে এগুলোকে দুনিয়া অর্জনের মাধ্যমে হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

অন্য কথায়, এটি ‘আল্লাহর দ্বীনকে ব্যবসায়িক স্বার্থে’ ব্যবহারের অন্তর্ভুক্ত।

মহান আল্লাহর নাম ও যিকিরের এ সকল ফযিলতপূর্ণ বাক্যকে অপাত্রে ব্যবহার করা হলে এতে এক দিকে যেমন দ্বীনকে দুনিয়ার স্বার্থে ব্যবহার করা হয় অন্য দিকে এর মাধ্যমে এগুলোর সম্মানহানি করা হয়।

সুতরাং এ সকল বাক্যের মাধ্যমে মার্কেট, হোটেল, পরিবহন বা অন্য কোন প্রতিষ্ঠানের নাম করা থেকে বিরত থাকা আবশ্যক।

সৌদি আরবের স্থায়ী ফতোয়া কমিটিও এ ধরণের নাম করণের অবৈধতার ফতোয়া প্রদান করেছেন।

আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে তার অসন্তোষ থেকে হেফাজত করুন। আমীন।

আল্লাহু আলাম।

▬▬▬ ◈◉◈▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানী
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার।

 

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

মাহবুব বিন আনোয়ার

❝ আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি আল্লাহ ছাড়া কোন হক ইলাহ নেই,এবং মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার বান্দা ও রাসূল।❞ আমি যদিও একজন জেনারেল পড়ুয়া ছাত্র তাই আমার পক্ষে ভুল হওয়া অসম্ভব কিছু না, আমি ইসলামী শরীইয়াহ বিষয়ক জ্ঞান অর্জনের চেষ্টা করছি এবং এর সাথে মানুষ কে রাসুল (সা:) এর হাদিস এবং আমাদের সালফে সালেহীনদের আদর্শের দিকে দাওয়াত দেওয়ার চেষ্টা করি। যদি আমার কোন ভুল হয় ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন এবং সেটা আমাকে জানাবেন যাতে আমি শুধরে নিতে পারি।

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button