আদব ও শিষ্টাচার

প্রশ্ন: সন্তানের নাম রাফি, রাব্বি, আবুল কাশেম, মীম, নুন, আলিফ, বাদশা রাখা যাবে কি?

উত্তর : নামকরণের বিষয়ে ইসলামী মূলনীতি অনুসরণ করতে হবে। কারণ নামের একটি প্রভাব আছে। রাসূলুল্লাহ (ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বিভিন্ন সময় ছাহাবীদের নাম পরিবর্তন করে দিতেন (তিরমিযী, হা/২৮৩৯; মিশকাত, হা/৪৭৭৪; সনদ ছহীহ, সিলসিলা ছহীহাহ, হা/২০৭)। প্রশ্নে উল্লিখিত নামগুলোর মধ্যে রাব্বি ও বাদশা ছাড়া বাকী নাম রাখাতে দোষ নেই। জন্মের পর শিশুর অন্যতম অধিকার হল অভিভাবক তার সুন্দর নাম রাখবে। এক্ষেত্রে আল্লাহর ছিফাতী নাম ‘আবদ’ যোগ করে, নবীদের নাম, ছাহাবীদের নাম, পূর্বসূরি ইমামগণের নাম রাখা যেতে পারে। তাই আলেমদের সাথে পরামর্শ করে অর্থপূর্ণ নাম রাখা উচিত।

 

সূত্র: মাসিক আল-ইখলাছ।

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button